আনোয়ারায় এসএসসিতে পরীক্ষার পাসের হারে এগিয়ে কাফকো স্কুল, তলানিতে কৈনপুরা স্কুল

dailybarta71dailybarta71
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  07:31 PM, 01 June 2020

ফরহাদুল ইসলাম, আনোয়ারা (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি:

গত ৩ ফেব্রুয়ারি অনুষ্ঠিত হয়ে যাওয়া মাধ্যমিক পরীক্ষায় আনোয়ারা উপজেলা থেকে অংশ নেওয়া পরীক্ষার্থীদের পাসের হার ৮৭.৫৭%। গতকাল রবিবার বেলা ১১টায় শিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে ফেইসবুক লাইভে মাধ্যমে মাধ্যমিকের ফলাফলের বিস্তারিত তুলে ধরেন শিক্ষামন্ত্রী।

এ বছর আনোয়ারা উপজেলার ২৬ টি মাধ্যমিক বিদ্যালয় থেকে সর্বমোট ৪০৬২ জন পরীক্ষার্থী এস.এস.সি পরীক্ষায় অংশ নেন। তার মধ্যে কৃতকার্য হয়েছেন ৩৫৪৯ জন, অকৃতকার্য হয়েছেন ৫১৩ জন ও জিপিএ-৫ পেয়েছেন ১৩৩ জন পরীক্ষার্থী। উপজেলার মাধ্যমিক শিক্ষা অফিস সূত্রে জানা যায়, এইবার আনোয়ারায় বিভিন্ন স্কুলের পাশের হারে এগিয়ে রয়েছে কাফকো স্কুল এন্ড কলেজ। ৫৬ জন পরীক্ষার্থীদের মধ্যে কৃতকার্য হয়েছে ৫৬ জন।

জিপিএ-৫ পেয়েছে ৩৫ জন। পাশের হার ১০০%। সর্বনিম্নে অবস্থানে রয়েছে কৈনপুরা উচ্চ বিদ্যালয়। ১১৬ জন পরীক্ষার্থীদের মধ্যে কৃতকার্য হয়েছে ৯০ জন। পাশের হার ৭৭.৫৯%। এছাড়া ২য় স্থানে রয়েছে চট্টগ্রাম ইউরিয়া ফার্টিলাইজার লিমিটেড স্কুল এন্ড কলেজ। ৮৬ জন পরীক্ষার্থীদের মধ্যে কৃতকার্য হয়েছে ৮৫ জন।জিপিএ-৫ পেয়েছে ২৩ জন, পাশের হার ৯৮.৮৪%।

৩য় স্থানে পরৈকোড়া নয়নতারা উচ্চ বিদ্যালয়। ১১০ পরীক্ষার্থীদের মধ্যে কৃতকার্য হয়েছে ১০৮ জন। জিপিএ-৫ পেয়েছে ৫ জন, পাশের হার ৯৫.০৮% । ৪র্থ স্থানে দক্ষিণ বন্দর উচ্চ বিদ্যালয়। ১২২ জন পরীক্ষার্থীদের মধ্যে কৃতকার্য হয়েছে ১১৬ জন।জিপিএ-৫ পেয়েছে ০২ জন, পাশের হার ৯৫.০৮। ৫ম স্থানে বশিরুজ্জমান স্মৃতি শিক্ষা কেন্দ্র। ১৩৭ জন পরীক্ষার্থীদের মধ্যে কৃতকার্য হয়েছে ১৩০ জন। জিপিএ-৫ পেয়েছে ০৩ জন, পাশের হার ৯৪.৭৪% । ৬ষ্ঠ স্থানে হাজিগাও শোলকাটা এস জে নেজাম উচ্চ বিদ্যালয়। ৯৫ পরীক্ষার্থীদের কৃতকার্য হয়েছে ৯০ জন। জিপিএ-৫ পেয়েছে ১ জন, পাশের হার ৯৪.৭৪% । ৭ম স্থানে আনোয়ারা আদর্শ সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়। ২৮০ জন পরীক্ষার্থীদের মধ্যে কৃতকার্য হয়েছে ২৬৩ জন জিপিএ-৫ পেয়েছে ১২ জন, পাশের হার ৯৩.৯৩%। ৮ম স্থানে ঝিবাশি উচ্চ বিদ্যালয়। ৯৫ জন পরীক্ষার্থীদের মধ্যে কৃতকার্য হয়েছে ৮৯ জন। জিপিএ-৫ পেয়েছে ১ জন, পাশের হার ৯৩.৬৮% ।

৯ম স্থানে সিংহরা রামকানাই উচ্চ বিদ্যালয়। ৬৫ পরীক্ষার্থীদের মধ্যেকৃতকার্য হয়েছে ৬০ জন। জিপিএ-৫ পেয়েছে ১ জন, পাশের হার ৯২.৩১% । ১০ স্থানে মাহাতা পাঠানিকোটা উচ্চ বিদ্যালয়। ১৬৯ জন পরীক্ষার্থীদের মধ্যে কৃতকার্য হয়েছে ১৫৪ জন। জিপিএ-৫ পেয়েছে ৮ জন, পাশের হার ৯০.৫৪% । এছাড়া ১১ তম স্থানে ইস্ট বরৈয়া টিএমসি উচ্চ বিদ্যালয়। ১২ তম স্থানে জেকেএস উচ্চ বিদ্যাল। ১৩ তম তৈলারদ্বীপ বারখাইন এরশাদ আলী বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়। ১৪ তম রায়পুর ইউনিয়ন উচ্চ বিদ্যালয়।

১৫ তম উপকূলীয় আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়। ১৬ তম আনোয়ারা বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়। ১৭ তম গুয়াপঞ্চক উচ্চ বিদ্যালয়। ১৮ তম বটতলী এস এম আউলিয়া উচ্চ বিদ্যালয়। ১৮ তম বরুমচড়া শহীদ বশরুজ্জমান উচ্চ বিদ্যালয়। ২০ তম চাতরী ইউনিয়ন উচ্চ বিদ্যালয়। ২১ তমমেরিন একাডেমি স্কুল এন্ড কলেজ। ২২ তম নিত্যানন্দ উচ্চ বিদ্যালয়।২৩ তম খাসখামা বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়। ২৪ তমবখতিয়ার পাড়া চারপীর আউলিয়া উচ্চ বিদ্যালয়। ২৫ তম পীরখাইন মাওঃ আশরাফ চৌঃ হাই স্কুল।

এবিষয়ে আনোয়ারা উপজেলার মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার ফেরদৌস হোসেন বলেন, ফলাফল মোটামোটি সন্তুোষজনক। তবে আগামীতে যাতে আরো ভালো ফলাফল আসে আমরা এ অনুযায়ী কাজ করবো।

আপনার মতামত লিখুন :