কলাপাড়া-কুয়াকাটায় রাসমেলা উৎযাপন

dailybarta71dailybarta71
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  01:47 PM, 12 November 2019

কলাপাডা (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি

কুযাকাটায রাধা কৃষ্ণ মন্দির ও তীর্থযাত্রী সেবাশ্রমের আয়োজনে ভক্তবৃন্দ ও পূনার্থীর উপস্থিতিতে ১০ নভেম্বর থেকে ৩ দিন ব্যাপি গঙ্গাস্নান ও রাসপূজা শুরু হয়েছে । অপরদিকে কলাপাডা পৌরশহরের মদনমোহন সেবাশ্রমে ১০ নভেম্বর থেকে শুরু হযে ৬ দিনব্যাপী রাস মেলা ও রাস পূজা চলবে। সোমবার রাতে কুযাকাটা ও কলাপাডার রাস পুজার উদ্বোধন করেন এই দুই মন্দিরের সভাপতি ও কলাপাডা পৌর মেযর বিপুল চন্দ্র হাওলাদার ।

সোমবার দিনরাত নামকৃত্তন অনুষ্ঠানের মধ্যদিয়ে কুয়াকাটা সমুদ্রে পাপ-মোচন করার উদেশ্যে দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে আগত হিন্দু ধর্মাবলম্বী নারী-পুরুষেরা মঙ্গলবার পূণ্যস্নান শেষে রাস পূজা ও উৎসবে মিলিত হন। রাস উৎসবকে ঘিরে কুয়াকাটাসহ কলাপাড়ার গোটা উপজেলায় প্রশাসনের বিভিন্ন স্তরের নজরদারি বাড়ানো হয়েছে। কুয়াকাটা সৈকতপাড়, কলাপাড়ার সেবাশ্রম প্রাঙ্গণসহ বিভিন্ন স্থানে প্রশাসনের নিরাপত্তার কডাকডি রয়েছে।

এছাড়া পুরো রাসমেলা এলাকার নিরাপত্তা বিধানে পুলিশের বিভিন্ন ইউনিটের পাশাপাশি একাধিক নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনার দায়িত্বে রয়েছেন। এদিকে কলাপাডা পৌরশহরের মদনমোহন সেবাশ্রম মন্দিরে রাসপূজা ও রাসমেলা রবিবার থেকে শুরু হযে শুক্রবার পর্যন্ত চলবে বলে জানা যায। কলাপাডা ও কুযাকাটার উভয স্থানে সকল ধর্ম-বর্র্নের মানুষেরা এই উৎসবে সবান্ধবে যোগদান করে সার্বজনীন এক মিলন মেলায পরিনত করেছেন।

বাংলাদেশ হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিস্টান যুব ঐক্য পরিষদের কেন্দ্রীয কমিটির সামাজিকমাধ্যম বিষযক সম্পাদক নীলরতন কুন্ডু গঙ্গা¯œানে আসা পূন্যার্থীদেরকে আন্তর্জাতিক এই পর্যটন কেন্দ্রের রাধাকৃষ্ণ ও তীর্থযাত্রী সেবাশ্রম মন্দির কুয়াকাটা পরিদর্শন করার জন্য সকলকে অনুরোধ জানিয়েছেন। এদিকে পূর্ণিমা তিথীতে রাস উৎসব পালন দেশি-বিদেশি পূণ্যার্থী, সাধু-সন্ন্যাসী, দর্শনার্থীদের আগমনে ২/১ দিন আগে থেকেই মুখরিত হয়ে ওঠে কুয়াকাটা সমুদ্র সৈকত। ঘূর্ণিঝড বুলবুল এর কারণে কিছুটা কম সংখ্যক ভক্তবৃন্দের উপস্থিতি সরোজমিনে লক্ষ করা যায। সোমবার সন্ধ্যায় অধিবাসের মধ্য দিয়ে শুরু হয়েছে এ রাস উৎসব। উল্লেথ্য, ঘূর্ণিঝড বুলবুলের শঙ্কায জাঁকজমকপূর্ণ অনুষ্ঠান ও মেলার আযােজন স্থগিত করে দেয উপজেলা প্রশাসন ও উৎসব উদযাপন কমিটি। পূণ্যস্নানে আসা পূণ্যার্থী শ্রীমতি সুনিতা দাস বলেন, প্রতিবছরের মতো এবছরও আমরা সব পাপ থেকে রেহাই পেতে কুয়াকাটা সমুদ্রে স্নান করতে এসেছি। আমাদের মতো হাজার হাজার পূণ্যার্থীরা এসেছেন একই মানসিকতায়।

কলাপাড়া মদন মোহন সেবাশ্রম এবং রাধাকৃষ্ণ মন্দির ও তীর্থযাত্রী সেবাশ্রম কুয়াকাটা এর সভাপতি বিপুল চন্দ্র হাওলাদার জানান, ১৯২৭ সালে সেবাশ্রম প্রতিষ্ঠাকাল থেকেই রাস উৎসব উদযাপিত হয়ে আসছে। বৃন্দাবনের মদন মোহন মন্দিরের ঠাকুরের অনুমতি নিয়েই বাংলাদেশে সর্বপ্রথম কলাপাড়া পৌর শহরের মদন মোহন সেবাশ্রমে রাস পূর্ণিমার এ পূজা ও রাসলীলা উৎসব উদযাপিত হয়ে আসছে। ওই সময় থেকেই কুয়াকাটায় শুরু হয় সাগরে পূণ্যস্নান।

রাসমেলায় আগতদের থাকা খাওয়া নির্বিঘেœ করতে আবাসিক হোটেল ভাড়া ও রেস্তোরাঁয় খাবারের মূল্য তালিকা টাঙানো, সুপেয় পানি ও পর্যাপ্ত স্যানিটেশন ব্যবস্থা নিশ্চিত করা, যত্রতত্র গাড়ি পার্কিং নিষিদ্ধ করে ইতোমধ্যে পৌরসভা থেকে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

কলাপাড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মোঃ মনিবুর রহমান এ প্রতিবেদককে জানান, ঘূর্ণিঝড বুলবুলের কারণে আগেভাগেই রাস মেলা ও স্টেজ প্রোগ্রাম সহ সকল জাঁকজমকপূর্ণ অনুষ্ঠান স্থগিত করা হযেেছ। ধর্মীয অনুষ্ঠান ও পুণ্যস্নানে নির্বিঘেœ করার লক্ষ্যে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের পাশাপাশি প্রশাসনের কন্ট্রোল রুম খোলা হযেেছ।
###

আপনার মতামত লিখুন :