চকরিয়া কোরক বিদ্যাপীঠ’র সাফল্যঃ বোর্ডে ১৭তম, জেলায় ৩য় এবং উপজেলায় ১ম!

dailybarta71dailybarta71
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  11:43 PM, 31 May 2020

নিজস্ব প্রতিবেদক

বরাবরের মতো সাফল্য ধরে রেখেছে দক্ষিণ চট্টলার ঐতিহ্যবাহী শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান চকরিয়া কোরক বিদ্যাপীঠ। ৩১ মে প্রকাশিত এসএসসি পরীক্ষা-২০২০ এর ফলাফলে চমক সৃষ্টি করে চট্টগ্রাম শিক্ষা বোর্ডে ১৭তম স্থান অধিকার করেছে এই বিদ্যালয়টি। পাশাপাশি এই বিদ্যালয়টি জেলায় ৩য় এবং উপজেলায় ১ম স্থান অধিকার করেছে। ২০২০ সালে উক্ত বিদ্যালয় থেকে ৪৪২ জন শিক্ষার্থী এসএসসি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেছিল। তন্মধ্যে ১১৩ জন এ+ সহ ৪৩৪ জন শিক্ষার্থী পাশ করেছে। বিদ্যালয়ের পাশের হার ৯৮.১৯%।

কক্সবাজার জেলা শিক্ষা অফিস সূত্রে জানাগেছে, জেলায় কক্সবাজার সরকারি বালিকা বিদ্যালয় ১ম, কক্সবাজার সরকারি বালক উচ্চ বিদ্যালয় ২য় এবং চকরিয়া কোরক বিদ্যাপীঠ ৩য় স্থান অর্জন করেছে।

এবিষয়ে চকরিয়া কোরক বিদ্যাপীঠ পরিচালনা কমিটির সভাপতি ও চকরিয়া-পেকুয়া আসনের সাংসদ আলহাজ্ব জাফর আলম প্রতিবেদকে জানান- আমার পরিচালনাধীন চকরিয়া কোকর বিদ্যাপীঠ প্রতিবছর জেলায় ১ম, ২য়, ৩য় হলে এইবারে বোর্ডের তালিকায় ১৭তম স্থান অর্জন করেছে। আশা করি ভবিষ্যতে বিদ্যালয়টি আরো এগিয়ে যাবে। এ ফলাফলের জন্য সকল শিক্ষক-শিক্ষিকা, অভিভাবক-অভিভাবিকা, ছাত্র-ছাত্রী, ম্যানেজিং কমিটির সকল সদস্যকে ধন্যবাদ এবং কৃতকার্য সকল শিক্ষার্থীদের অভিনন্দন জানান।

বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক নুরুল আখের বলেন- আলহামদুলিল্লাহ, আমরা অনেক দূর এগিয়েছি। প্রতিবছর আমার বিদ্যালয়টি জেলায় শীর্ষ তিনএ অবস্থান করলেও আজ জেলা অতিক্রম করে বোর্ডে ১৭তম স্থান দখল করেছে। এ সফলতার পেছনে ম্যানেজিং কমিটির সম্মানিত সভাপতি ও কক্সবাজার-১ আসনের সাংসদ আলহাজ্ব জাফর আলম, ম্যানেজিং কমিটির অন্যান্য সকল সদস্য, বিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষিকা, বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী, অভিভাবক-অভিভাবিকাদের যথেষ্ট ভূমিকা ছিল। আমি তাঁদেরকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানাচ্ছি। পাশাপাশি কৃতকার্য শিক্ষার্থীদের জন্য রইল আন্তরিক দোয়া শুভ কামনা।

এদিকে চট্টগ্রাম শিক্ষা শিক্ষাবোর্ড জিপিএ-৫ এর ভিত্তিতে সেরা ২৫টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের তালিকা প্রকাশ করেছে শিক্ষাবোর্ডটি। সেগুলো নিম্নরূপ-
১। প্রথম হয়েছে চট্টগ্রাম কলেজিয়েট স্কুল। প্রতিষ্ঠানটির ৪৭০ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে ৪৬৯ পাস করেছে; এর মধ্যে জিপিএ-৫ পেয়েছে ৪৩৮ জন।

২। দ্বিতীয় হয়েছে সরকারি মুসলিম হাই স্কুল। প্রতিষ্ঠানটির ৪৪২ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে সবাই পাস করেছে; এর মধ্যে জিপিএ-৫ পেয়েছে ৩৫৪ জন।

৩। তৃতীয় হয়েছে নাসিরাবাদ সরকারি হাই স্কুল। প্রতিষ্ঠানটির ৪৬৭ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে সবাই পাস করেছে; এর মধ্যে জিপিএ-৫ পেয়েছে ৩০৩ জন।

৪। চতুর্থ অবস্থানে রয়েছে খাস্তগীর সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়। প্রতিষ্ঠানটির ৩৪০ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে সবাই পাস করেছে; এর মধ্যে জিপিএ-৫ পেয়েছে ২৮৫ জন।

৫। বাংলাদেশ মহিলা সমিতি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজ রয়েছে পঞ্চম স্থানে। প্রতিষ্ঠানটির ৪৬২ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে সবাই; এর মধ্যে জিপিএ-৫ পেয়েছে ২৮৪ জন।

৬। ৬ষ্ঠ স্থানে থাকা নৌ-বাহিনী উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজের ৫১৯ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে ৫১৭ পাস করেছে; এর মধ্যে জিপিএ-৫ পেয়েছে ২৫২ জন।

৭। চট্টগ্রাম সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় আছে ৭ম স্থানে। প্রতিষ্ঠানটির ২৮৬ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে ২৮৪ পাস করেছে; এর মধ্যে জিপিএ-৫ পেয়েছে ২০৪ জন।

৮ চট্টগ্রাম সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের ৩৪৫ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে ৩৩৯ পাস করেছে; এর মধ্যে জিপিএ-৫ পেয়েছে ১৭৩ জন। জিপিএ-৫ এ সেরাদের তালিকায় প্রতিষ্ঠানটি আছে ৮ম স্থানে।

৯। ৯ম স্থানে আছে বাকলিয়া সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়। প্রতিষ্ঠানটির ৩৮২ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে ৩৮০ পাস করেছে; এর মধ্যে জিপিএ-৫ পেয়েছে ১৬৬ জন।

১০। ১০ম স্থানে রয়েছে ক্যান্টনমেন্ট ইংলিশ স্কুল অ্যান্ড কলেজ। তাদের ১৮৩ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে সবাই পাস করেছে; এর মধ্যে জিপিএ-৫ পেয়েছে ১৫৬ জন।

বাকি ১৫ স্কুলের মধ্যে আছে যথাক্রমে
১১।চট্টগ্রাম ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল ও কলেজ,
১২। কক্সবাজার সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়,
১৩। সিলভার বেলস বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়,
১৪। হালিশহর ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল, ১৫। কক্সবাজার সরকারি বালক উচ্চ বিদ্যালয়,
১৬। অপর্না চরণ সিটি করপোরেশন বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়,
১৭। চকরিয়া কোরক বিদ্যাপীঠ, চকরিয়া, কক্সবাজার

১৮। সিটি সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় ডবলমুরিং চট্টগ্রাম,
১৯। সেন্ট প্লাসিড উচ্চ বিদ্যালয়,
২০। ইস্পাহানি পাবলিক স্কুল ও কলেজ, ২১। জোরারগঞ্জ বৌদ্ধ উচ্চ বিদ্যালয়,
২২। অংকুর সোসাইটি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়,
২৩। কাপাসগোলা সিটি করপোরেশন বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়,
২৪। আবদুর রহমান সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় পটিয়া
২৫। চট্টগ্রাম ইঞ্জিনিয়ারিং ইউনিভার্সিটি স্কুল অ্যান্ড কলেজ।

আপনার মতামত লিখুন :