চকরিয়ার বরইতলীতে চাচার বাড়িতে হামলা ভাতিজার, অবুঝ শিশসহ আহত ২,

নিজস্ব প্রতিবেদকনিজস্ব প্রতিবেদক
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  11:42 AM, 28 June 2020

 

চকরিয়া প্রতিনিধিঃ
চকরিয়ায় জমি বিরোধ নিয়ে পূর্বশত্রুতার জের ধরে বসতভীটায় ঢুকে হামলা, ভাংচুর ও গাছ কেটে লুটের ঘটনা ঘটেছে। সন্ত্রাসী হামলায় বাড়িতে বেড়াতে আসা মেয়ে ও অবুঝ শিশু নাতি আহত হয়েছে। উপজেলার বরইতলী ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ডের মছনিয়াকাটা গ্রামে গত ২৭জুন রাত ২টায় ও সকাল ৯টায় দু’দফায় ঘটেছে এ ঘটনা।

অভিযোগে জানাগেছে, বরইতলী ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ডের মছনিয়াকাটা গ্রামে দীর্ঘকাল ধরে শান্তিপূর্ণভাবে বসবাস করে আসছেন মরহুম মোজাহের আহমদের পুত্র আবদুল করিম। তাদের সাথে বরইতলী দিয়ে সৃষ্ট চকরিয়া পেকুয়ার নতুন সড়ক নির্মাণের অনেক পূর্বে পারিবারিক জমি জমার বন্ঠন হয়ে আপন সহোদর মরহুম আবদুল হামিদের ওয়ারিশদের সাথে। উভয়ের মধ্যে বিরোধ বিহীন স্ব স্ব ভোগ দখলীয় জমি নিয়ে বসবাসও করে আসছেন। কিন্তু নতুন রাস্তা হওয়ার কারণে জমির মূল্য একটু বৃদ্ধি পাওয়ার সুযোগে আপন চাচার ভোগ দখলীয় জমির প্রতি লুলোপ দৃষ্টি পড়ে ভাতিজাসহ সন্ত্রাসী বাহিনীর। এমনকি বেশ কিছুদিন ধরে চাচা আবদু্ল করিমকে হুমকিও দিয়ে আসছিলেন ভাতিজা আবদুল কাদের। সর্বশেষ ঘটনার দিন গত ২৭জুন রাত ২টার দিকে মৃত আবদুল হামিদের পুত্র। আবদুল কাদের ও তার সহযোগি দিদারুল ইসলামের নেতৃত্বে ভাড়াটিয়া লোকজন নিয়ে বসতভীটার ৭টি সুপারি গাছ কেটে নিয়ে গিয়ে ভাংচুর চালানো হয়। পরে এদিন সকাল ৯টার দিকে বাড়ির ওঠানে ও ভেতরে ঢুকে ২য় দফায় ফের হামলা চালায়। হামলায় বেড়াতে আসা আবদুল করিমের মেয়ে রোজিনা আক্তার (২২) ও ৩ বছর বয়সী অবুঝ শিশু নাতি মোঃ আরাফাত হামলায় গুরুতর আহত হয়েছে। তন্মধ্যে শিশুর মুখে ও নাকে আঘাত হয়েছে এবং রোজিনার বাম হাত ভেঙ্গে গেছে। আহতদের উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।
বিষয়টি স্থানীয় ইউপি সদস্য আবদু শুক্কুর শালিসে বসে সমাধানের আশ্বাস দিলেও হামলাকারীদের ইন্ধনে কোন সমাধান করবেনা বলে তাঁড়িয়ে দেন। এপ্রসঙ্গে বরইতলী ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান জালাল আহমদ সিকদার বলেন, বিষয়টি সম্পর্কে তাকে মোবাইল ফোনে অবহিত করা হয়েছে। তিনি আজ (২৮জুন) সকালে তার কাছে যাওয়ার জন্য বলেছেন এবং সুষ্ঠু সমাধানের আশ্বাস দেন।

এদিকে ঘটনার বিষয়ে থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে বলে হামলার শিকার পরিবার সূত্রে জানাগেছে।

আপনার মতামত লিখুন :