চকরিয়া কোরক বিদ্যাপীঠ ম্যানেজিং কমিটির নির্বাচন সম্পন্ন

Dailybarta71Dailybarta71
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  08:46 AM, 21 November 2019

রিপোর্টঃ এম, রিদুয়ানুল হক/মুহাম্মদ মনজুর আলমঃ চকরিয়া কোরক বিদ্যাপীঠ ম্যানেজিং কমিটির নির্বাচন ২১ নভেম্বর (বৃহস্পতিবার) সম্পন্ন হয়েছে। ২১ নভেম্বর নির্বাচনের তারিখ ঘোষণা থাকলেও নির্ধারিত তারিখের পূর্বে বেশিরভাগ ক্যাটাগরিতে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বীতায় সদস্যরা নির্বাচিত হয়েছেন। আজ শুধুমাত্র শিক্ষক ক্যাটাগরি প্রতিনিধির নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। সকাল ১০ টা থেকে বিকাল ৪ টা পর্যন্ত ভোটের সময় থাকলেও দুপুর ১২ টার মধ্যে সব ভোট কাষ্টিং হওয়ায় ভোট শেষ হয়ে যায়।

সকল শিক্ষক ভোট প্রয়োগ করার পর নির্বাচনে দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রিসাইডিং কর্মকর্তা ও চকরিয়া উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা মো.হামিদুল্লাহ মিয়ার কাছে ৪ জন শিক্ষক প্রতিনিধি প্রার্থী ভোট গণনার আবেদন করলে তিনি তাঁদের আবেদন গ্রহণ করে দুপুর ১২ টার সময় ভোট গণনা শুরু করেন। শিক্ষক প্রতিনিধির নির্বাচনে মাধ্যমিক শাখায় ৩১ ভোটের মধ্যে সবগুলো ভোট কাষ্টিং হয়। এতে জাইদুল হক ও নুরুল ইসলাম সমান সংখ্যক ভোট (১৫ ভোট) পায় এবং একটি ভোট বাতিল ঘোষণা করা হয়।

নির্বাচনী ম্যানুয়াল অনুযায়ী পার্থীরা সমান সংখ্যক ভোট পেয়ে থাকলে লটারির মাধ্যমে একজনকে নির্বাচিত ঘোষণা করতে হয়। উক্ত নিয়ম অনুসরণ করে নির্বাচনে দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রিসাইডিং কর্মকর্তা ও চকরিয়া উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা মো.হামিদুল্লাহ মিয়া লটারির ব্যবস্থা করেন। এতে মাধ্যমিক শাখায় শিক্ষক প্রতিনিধি হিসেবে জাইদুল হক নির্বাচিত হন।

এদিকে প্রাথমিক ও মাধ্যমিক যৌথ শাখায় মহিলা শিক্ষক প্রতিনিধি হিসেবে নির্বাচনে অংশ নিয়েছিলেন শ্রীমতি রূপালী রাণী দে (প্রাথমিক শাখা) ও লাভলি সিকদার (মাধ্যমিক শাখা)। মহিলা শিক্ষকদের ২০ ভোটের বিপরীতে ১৯ ভোট কাষ্টিং হয়। একজন ভোটার দেশের বাইরে থাকায় ভোট প্রদানে অংশ নিতে পারেননি। এতে ১২ ভোট পেয়ে মহিলা শিক্ষক প্রতিনিধি নির্বাচিত হয়েছেন শ্রীমতি রূপালী রাণী দে। তার নিকটত প্রতিদ্বন্দ্বী লাভলি সিকদার পেয়েছেন ৭ ভোট।

উল্লেখ্য যে, গত ২৭ অক্টোবর নির্বাচনী তফসিল অনুযায়ী ২১ নভেম্বর ভোট গ্রহণের দিন নির্ধারণ ছিল। এদিকে বিদ্যালয় ম্যানেজিং কমিটির নির্বাচনে দুইজন শিক্ষক প্রতিনিধি ছাড়া অন্যান্য ক্যাটাগরির প্রার্থীরা ইতিপূর্বে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বীতায় নির্বাচিত হয়েছেন। তাঁরা হলেন – প্রতিষ্ঠাতা সদস্য হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন আলহাজ্ব নুরুল আবচার, দাতা সদস্য হিসেবে আলহাজ্ব আলা উদ্দীন আল আযাদ (সাবেক চেয়ারম্যান), প্রাথমিক শাখায় অভিভাবক প্রতিনিধি হিসেবে শওকত হোসেন ও আবু মুছা, মাধ্যমিক শাখার অভিভাবক ক্যাটাগরিতে আব্দুল হাকিম ও মুজিবুর রহমান। মহিলা অভিভাবক ক্যাটাগরিতে ইসমত আরা বুলু। প্রাথমিক শাখার শিক্ষক প্রতিনিধি হিসেবে বাবু অলসন বড়ুয়া। শিক্ষাবোর্ডের নীতিমালা অনুযায়ী পদাধিকার বলে বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সদস্য-সচিব থাকবেন অত্র বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক নুরুল আখের।

অন্যদিকে ১৩ সদস্য বিশিষ্ট কমিটিতে উপরোক্ত প্রতিনিধিরা আরো ২ জন সদস্য নির্বাচিত করবেন। তাদের একজন সভাপতি অন্যজন শিক্ষানুরাগী।

আপনার মতামত লিখুন :