Main Menu

চুনতি আখেরী মোনাজাতে লাখো কণ্ঠে আমিন আমিন ধ্বনিতে মূখরিত সীরত ময়দান

১৯দিন ব্যাপী ৪৯তম সীরত মাহফিলে সমাপনী দিবসে মোনাজাত পরিচালনা করছেন ড. মাওলানা শহিদুল ইসলাম বারাকাতী।

লোহাগাড়া প্রতিনিধি:

লোহাগাড়া উপজেলার চুনতিতে আশেকে রসুল (স:) অলিকুলে শিরোমনি মুজাদ্দেদে (রাহ.আ.) শাহ সাহেব কেবলা চুনতি কর্তৃক প্রবর্তিত ১৯ দিন ব্যাপী ৪৯তম মাহফিলে সীরতুন্নবী (স:) সমাপনী দিবসে আখেরী মোনাজাতে লাখো কণ্ঠে সীরত ময়দান আমিন আলাহুম¥া আমিন, আমিন ধ্বনিতে মুখরিত হয়ে ওঠে।

বৃহস্পতিবার (২৮ নভেম্বর) দিবাগত ভোর রাতে আখেরী মোনাজাত পরিচালনা করেন প্রখ্যাত আলেমে দ্বীন অধ্যাপক ড. হাফেজ মাওলানা শহীদুল ইসলাম বারাকাতী। মোনাজাতে দেশের শান্তি ও মুসলিম উম্মার ঐক্য, শান্তি ও মঙ্গল কামনায় দোয়া করা হয়। মোনজাতে চট্টগ্রাম-কক্সবাজারসহ দেশের বিভিন্ন এলাকার মুসলিম জনতা সকাল থেকে সীরত ময়দানে জড়ো হতে থাকে। বিকেল ঘনিয়ে আসলেই কানায় কানায় পূর্ণ হয় সীরক ময়দান। মাহফিলে আগম মুসলিম জনতা দেশের বড়বড় আলেমদের বয়ান শ্রবণ করেন। ১৯দিন ব্যাপী ৪৯তম মাহফিলে সীরতের বয়ান শুনে ১৫ জন বিধর্মীয় লোক কালেমা পড়ে ইসলাম ধর্ম কবুল করেন।

সমাপনী দিবসে সকাল থেকে বয়ান করেন টেকনাফের হ্নীলা জমিরিয়া ইসলামীয় মাদরাসার উপাধ্যক্ষ মাওলানা ফেরদৌস আহমদ জমিরি, বনিয়ে সীরত হযরত শাহ সাহেব কেবলার কারামতপূর্ণ জীবনের বিভিন্ন দিক নিয়ে আলোচনা করেন প্রখ্যাত আলেম কাজী মাওলানা নাছির উদ্দিন, মাযহাব প্রতিষ্ঠায় ইমাম আবু হানিফা (রহ:) এর অবদান ও তাঁর জীবনী বর্ণনা মাওলানা মুহাম্মদ আজিজুল হক, অমুসলিমদের প্রতি মহানবী (স.) এর উদারতা সম্পর্কে বয়ান করেন প্রফেসর ড. আহসান উল্লাহ, বায়তুশ শরফের পীর সাহেব বাহারুল উলুম হযরত মাওলানা মুহাম্মদ কুতুব উদ্দিন, পটিয়া আল জামিয়াতুল ইসলামিয়া মাদরাসার উপাধ্যক্ষ মাওলানা ওবাইদুল্লাহ হামযা, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. মাওলানা গিয়াস উদ্দিন তালুকদার, ফেনীর মাওলানা ফরিদ উদ্দিন আল মুবারক, ঢাকা জামিয়া কুরআনিয়া লালবাগ মাদ্রাসার মুহাদ্দিস মাওলানা সাখাওয়াত হোসাইন, মুহাদ্দিস মাওলানা মুফতি মুহাম্মদ ফয়জুল্লাহ ও অধ্যাপক ড. শহীদুল ইসলাম বারাকাতী।

বক্তারা সীরত মাহফিলে আগত মুসল্লিদের নবী রাসুলের জীবন অনুস্মরণ ও কোরআন সুন্নাহর আলোকে জীবন যাপন করার তাগিত দেন। এছাড়া পরকালে শান্তির জন্য আল্লার দেওয়া কিতাব ও রাসূলের হাদিস আখড়ে ধরার পরামর্শ দেন। জাহান্নাম থেকে মুক্তির জন্য পাঁচ ওয়াক্ত সামাজ জামাতের মাধ্যমে আদায় করতে হবে। নামাজ ছাড়া জান্নাতের পথ দেখতে পাবে না। জান্নাতের পথ সুগম করতে নামাজের বিকল্প নেই। পৃথিবীতে মুসলমানদের ধ্বংস করতে বিভিন্ন পায়তারা করছে বিশেষ মহল। সেই বিষয়ে নজর রাখার জন্য মাহফিলে আগত মুসল্লিদের আহবান জানান বক্তারা।






Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*