Main Menu

চৌফলদন্ডীতে থেমে নেই মাদক ব্যবসা

বার্তা পরিবেশক:

কক্সবাজার সদরের চৌফলদন্ডীতে মাদক ব্যবসা থেমে নেই। অপ্রতিরোধ্য হয়ে উঠেছে ইয়াবা ও চোলাই মদের রাজত্ব। মাদকের ছোবল থেকে রক্ষা পাচ্ছে না ইউনিয়নের উঠতি বয়সের যুবক, কিশোরসহ শিক্ষার্থীরাও।

স্থানীয়দের সাথে কথা বলে জানা গেছে, বর্তমানে চার সহোদরের নিয়ন্ত্রণে চলছে চৌফলদন্ডীর মাদক ব্যবসা। তারা হলেন (২নং ওয়ার্ড) দক্ষিণ পাড়ার সাবেক মেম্বার মৃত মনছুর আলমের ছেলে মোঃ ইমরান, হুমায়ুন, সাইফুল ও শহিদুল ইসলাম। এদের রয়েছে কয়েক ডজন সক্রিয় সদস্য। ইয়াবা ব্যবসা ও রাখাইন পাড়ার চোলাই মদ কারখানা নিয়ন্ত্রণে তারাই।

আরো জানা গেছে প্রশাসনের চোখ ফাঁকি দিয়ে টেকনাফ থেকে নৌপথে চৌফলদন্ডীতে আসছে ইয়াবা। সেখান থেকে পোকখালী ও ঈদগাহ সড়ক দিয়ে এ চার সহোদরের নেতৃত্বে বিভিন্ন স্থানে পাচার হচ্ছে। সবকিছু জেনেও জড়িতরা প্রভাবশালী হওয়ায় প্রতিবাদ করতে সাহস পাচ্ছে না স্থানীয় লোকজন।

এসব মাদক পাচারের চিহ্নিত পয়েন্ট গুলোর মধ্যে রয়েছে চৌফলদন্ডী ব্রিজের পার্শ্ববর্তী ঘাট, ব্রিজের নিচে পুরাতন জেটি, রাখাইন পাড়া, নাপ্পি ঘাট ও খুরুষ্কুলের ঝাউবন।

এসব স্থানে প্রতিনিয়ত ইয়াবার লেনদেন হচ্ছে বলে জানান স্থানীয়রা। তবে কিউবা রাখাইনসহ ইয়াবা বিখ্যাত ব্যক্তিরা গা ঢাকা দিলেও মাদক বিস্তার থেমে নেই। সচেতন মহলের অভিযোগ বর্তমানে মাথা তুলে মাদক জগতের হাল ধরছে এই চার সহোদর। প্রশাসনের সক্রিয় ভুমিকা না থাকায় তাদের নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব হচ্ছে না বলে দাবী সচেতন মহলের।

এব্যপারে জানতে চাইলে চৌফলদন্ডী ইউপি চেয়ারম্যান ওয়াজ করিম বাবুল বলেন, আমি নতুন করে কি আর বলব! এলাকার লোকজন সবকিছু জানে। এসব নতুন কিছু নয়।

কক্সবাজার সদর মডেল থানার ওসি তদন্ত মোঃ খায়রুজ্জামান বলেন, মাদকের সাথে সংশ্লিষ্ট কাউকে ছাড় দেওয়া হচ্ছে না। চৌফলদন্ডীতে শীঘ্রই অভিযান চালানো হবে। জড়িত সকলকে আইনের আওতায় আনা হবে বলেও তিনি জানান।






Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*