Main Menu

পিইসি ও এবতেদায়ী সমাপনী: জলঢাকায় ৮০জন প্রক্সি দেয়ার সময় আটক

নীলফামারী প্রতিনিধি॥ নীলফামারীর জলঢাকা উপজেলায় চলমান পিইসি ও এবতেদায়ী সমাপনী পরীক্ষায় বিভিন্ন মাদ্রাসার হয়ে ৮০জন এবতেদায়ী পরীক্ষায় প্রক্সি দেয়ার সময় তাদেরকে বুধবার(২০ নভেম্বর)আটক করেছেন দায়িত্বরত শিক্ষা কর্মকর্তা কর্মকর্তা। আটককৃতরা উপজেলার চিড়াভিজা গোলনা দ্বি-মুখী উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে বিভিন্ন মাদ্রাসার হয়ে এবতেদায়ী সমাপনী পরীক্ষায় অন্যের হয়ে প্রক্সি পরিক্ষা দিয়ে আসছিল।

বিদ্যালয়টি সুত্রে জানা যায়, বুধবার চতুর্থ দিনের মতো পিইসি সাধারন বিজ্ঞান ও এবতেদায়ী আরবী বিষয়ে পরীক্ষা চলছিল। পরীক্ষার্থীদের বয়স দেখে সন্দেহ হওয়ায় দায়িত্বরত কর্মকর্তা তাদের প্রবেশপত্র দেখতে থাকেন এবং কৌশলে বিভিন্ন প্রশ্ন করতে করতে এক সময় সত্য উদঘাটন করেন।তারা প্রকৃত পরীক্ষার্থী নয় প্রক্সি দিচ্ছে অন্য পরীক্ষার্থীর হয়ে। পর্যায়ক্রমে একে একে ৮০ জন সনাক্ত হয় প্রক্সিদাতা। এসময় সেখান হতে নয়জন দৌড় দিয়ে পালিয়ে যায়।উপজেলা শিক্ষা অফিস সূত্র জানায়, উপজেলাটিতে ১৬টি পরীক্ষা কেন্দ্রে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের আট হাজার ২৯০ জন ও এবতেদায়ী সমাপনীতে এক হাজার ৪৬৭ জন পরীক্ষায় অংশ নিচ্ছে।এবং চিড়াভিজা গোলনা দ্বি-মুখী উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে ১০টি মাদ্রাসা ও ১৮টি স্কুলের মোট ৬৯৯জন পরীক্ষার্থী পরিক্ষা দিচ্ছিলেন। এর মধ্যে কেন্দ্রটিতে ১০টি মাদ্রাসা হতে ১৬২জন পরীক্ষায় অংশ নিয়েছেন।

এ বিষয়ে চিড়াভিজা গোলনা দ্বি-মুখী উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্র সচিব ও প্রধান শিক্ষক আল হাসান জায়েদ নওরোজী বলেন,তারা বিভিন্ন মাদ্রাসার হয়ে প্রক্সি পরীক্ষা দিয়ে আসছিলো। তাদেরকে বহিস্কার করা হয়েছে।

সেখানকার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ও উপজেলা সহকারী শিক্ষা কর্মকর্তা হারুন অর রশিদ ঘটনার সত্যতা নিশ্চি করে বলেন,প্রথম দিন হতেই তাদের দেখে সন্দেহ হয়।তারা অনেকেই মেধাবী।আজ তাদের আটকের পর মুচলেকা নিয়ে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।






Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*