পেকুয়ায় ৯০ পরিবারের মাঝে ত্রান দিল উপজেলা প্রবাসী একতা সংঘ

dailybarta71dailybarta71
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  12:24 AM, 30 July 2020

নাজিম উদ্দিন,পেকুয়া
মানবতার সেবায় মুক্তির সোপান, সেই স্লোগানটি হৃদয়ে ধারণ করে, এবার প্রবাসী প্রতিভাবান মানবতাবাদী তরুণদের ঐক্যবদ্ধ করে পেকুয়া উপজেলা প্রবাসী একতা সংঘ এসেছে অসহায় হত-দরিদ্র মানুষের দুঃখ লাঘব করতে। করোনার মহামারীতে যখন সমগ্র পৃথিবী অন্ধকারাচ্ছন্ন, সাধারণ মানুষ যখন খাদ্যের অভাবে খেয়ে না খেয়ে দিন কাটাচ্ছে, ক্ষুধার যন্ত্রণায় চটপট করছে ঠিক এমন সময় পেকুয়া উপজেলা প্রবাসী একতা সংঘ উদ্যোগ গ্রহণ করেছে পেকুয়া উপজেলার প্রতিটি ওয়ার্ডে কর্মহীনদের খাদ্য সামগ্রী বিতরণের মাধ্যমে অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়িয়ে মানবতার দৃষ্টান্ত স্থাপন করতে।

তারই ধারাবাহিকতায় ২৮ জুলাই ( মঙ্গলবার ) দুপুর ২ টায় বারবাকিয়া ফাঁশিয়া খালি ফাযিল মাদ্রাসা প্রাঙ্গনে , বিকাল ৪ টায় রাজাখালি এয়ার আলী খাঁন আর্দশ উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে প্রতি ওয়ার্ড থেকে ০৫ জন করে মোট ৯০ টি পরিবারের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করা হয়। উপজেলায় ৪ শত পরিবার এ ত্রাণ বিতরণ কার্য়ক্রমের আওতায় থাকবে। পর্যায়ক্রমে পুরো উপজেলার প্রতিটি পাড়া মহল্লায় ত্রাণ বিতরণ অব্যহত থাকবে ।

এসময় ত্রাণ পেয়ে অনেক অসহায় উচ্ছাস প্রকাশ করে প্রবাসীদের জন্য হাত তুলে দোয়া করেন যেন আল্লাহ তাদের দানকে কবুল করেন।

পেকুয়া উপজেলা প্রবাসী একতা সংঘ নামক এই সংগঠনটির যাত্রা শুরু হয়েছিলো, এম এ এইস তিতুমীর, সালাউদ্দীন কাজুল, মোহাম্মদ জাহিদ, ইউসুপ এলাহি মারুফ , শাহাদাত হোসেন আরিয়ান ও আরকানের মতো কিছু প্রতিভাবান তরুণদের হাত ধরে। পরবর্তীতে তাদের সাথে একে একে যুক্ত হয়েছেন অনেকেই । তাদের মধ্যে মোহাম্মদ জাহেদ, জাকের হোসেন, সেই জাহেদ, তানজিদ হাশমী সনেট, মোহাম্মদ ইলিয়াস, মোহাম্মদ বকতিয়ার, মাহমুদুল করিম কুতুবী, মোহাম্মদ সালাউদ্দিন, আনিসুল আজম, শাহা জাহান, কবির হোসেন, খোকন, জাহাঙ্গীর, হোসাইন, মোহাম্মদ ইব্রাহিম, এ কায়সার হামিদ, রাফিউস সাদাক রাফি, সাদ্দাম হোসেন, মোহাম্মদ রাশেদ, শাহাদাত হোসেন, কাজী নজরুল ইসলাম, মোহাম্মদ মিজান, আবুল কালাম রাজু, মোহাম্মদ রুখন অারিফুল ইসলাম, ছবি নূর ও হানিফসহ অনেকের কথা অনস্বীকার্য। পেকুয়া উপজেলা প্রবাসী একতা সংঘ’ আগামী ১০ বছরে পেকুয়া উপজেলায় শিক্ষার হার ১০০% এ উন্নীতকরণ ও সকল নাগরিকের সুচিকিৎসা নিশ্চিত করার পরিকল্পনা নিয়ে কাজ করবে বলে জানা গেছে। পাশাপাশি অসহায়, হতদরিদ্র, বিপদগ্রস্ত মানুষের পাশে থাকতে তারা দৃঢ় প্রতিজ্ঞাবদ্ধ। সাংগঠনিক স্লোগান হলো শিক্ষা স্বাস্থ্য উন্নয়ন ও মানবতার সেবায় আধুনিক পেকুয়া বিনির্মানে অামরা প্রতিজ্ঞাবদ্ধ।

ভবিষ্যৎ পরিকল্পনায় প্রতি ইউনিয়নে দারিদ্র অবহেলিত শিক্ষার্থীদের দক্ষ করে তুলতে একটি করে কম্পিউটার প্রশিক্ষণ কেন্দ্রসহ অনেক নানামুখী জন উন্নয়নমুলক কাজ করবে বলে জানা গেছে।

আপনার মতামত লিখুন :