• বুধবার, ১৮ মে ২০২২, ০৭:৩৩ অপরাহ্ন
Headline
পৈতৃক সম্পত্তি অবৈধভাবে জবরদখল; বাঁধা দেওয়ায় আপন ভাইকে মেরে গুরুতর জখম রাজনীতির ক্যারিয়ার ধ্বংস করতে স্বামীকে ফাঁসানো হয়েছে; চকরিয়ায় সংবাদ সম্মেলনে স্ত্রীর দাবী কুতুবদিয়া আজম কলোনীর পানির সমস্যা খুব দ্রুত সমাধান হবে- এমপি আশেক উল্লাহ রফিক চকরিয়া বদরখালীতে গণসংবর্ধনায়— কারামুক্ত হেফাজ সিকদার পরাজিত প্রার্থীদের ষড়যন্ত্র ও অপপ্রচার বন্ধে সাংবাদিকদের সহায়তা চাইলেন ইউপি চেয়ারম্যান নবী চৌধূরী রেমিট্যান্স যোদ্ধা;যথাযথ মর্যাদা এবং নিশ্চিত সুরক্ষা জনগণের জানমালের নিরাপত্তা দেওয়া পুলিশের প্রধান কাজ- হাসানুজ্জামান পিপিএম প্রচারিত সংবাদের প্রতিবাদ জানিয়েছেন ইউপি চেয়ারম্যান নবী হোছাইন চকরিয়ায় ক্রেতা-বিক্রেতার মধ্যে সংঘটিত ভুল বুঝাবুঝির অবসান বিএমচরের চেয়ারম্যান ও ছাত্রলীগের সা.সম্পাদকের বিরুদ্ধে হয়রানিমূলক মামলা প্রত্যাহারের দাবি

ছাতকে সরকারি চাল কালো বাজারে বিক্রয়ের সময় পিকআপসহ আটক

Reporter Name / ৩০৯ Time View
Update : শনিবার, ১ মে, ২০২১

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি:
সুনামগঞ্জের ছাতকের দক্ষিন খুরমা ইউনিয়নে ১০ টাকা কেজির ফেয়ার প্রাইজ সরকারের খাদ্য বান্ধব কর্মসূচীর চাল কালোবাজারে বিক্রয়ের সময় পিকআপ গাড়ীসহ আটক করেছেন স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল মছব্বির। আজ বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৬ টা ১০ মিনিটের দিকে উপজেলার মানিকগঞ্জ বাজারে এ ঘটনা ঘটে।
স্থানীয় সুত্রে জানা যায়, দক্ষিন খুরমা ইউনিয়নের ১০ টাকা কেজির ফেয়ার প্রাইজ সরকারের খাদ্য বান্ধব কর্মসূচীর চালের ডিলার আব্দুল মালিকের মানিকগঞ্জ বাজারের দোকান থেকে কৈতক রাউলির মোস্তফা মিয়া ঢাকা মেট্রো ন- ১৫-১৪৩৫ একটি পিকআপ গাড়ীতে ৩৫ বস্তায় অনুমানিক ১৭৫০ কেজি চাল কালোবাজারে ক্রয় করে নিয়ে যাচ্ছিলেন। খবর পেয়ে তাৎক্ষনিক ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল মছব্বির ঘটনাস্থলে এসে পিকআপ গাড়ীসহ চাল আটক করে থানা পুলিশে খবর দেন। খবর পেয়ে তাৎক্ষনিক ঘটনাস্থলে পৌছেন ছাতক থানার এসআই আনোয়ার ও সঙ্গীয় ফোর্স। এ সময় স্থানীয় ইউপি সদস্য ইলিয়াছ আলীসহ এলাকার গণ্যমান্য ব্যাক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন। সন্ধ্যার পর ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক আব্দুর রব।
এ বিষয়ে দক্ষিন খুরমা ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল মছব্বির বলেন, ১০ টাকা কেজির ফেয়ার প্রাইজ সরকারের খাদ্য বান্ধব কর্মসূচীর চাল কালোবাজারে বিক্রয়ের সময় পিকআপ গাড়ীসহ আটক করে থানা পুলিশকে জানাই। থানা পুলিশ এসে চাল ও পিকআপ গাড়ী কওে থানায় নিয়ে যাওয়া হয়।
ছাতক উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক আব্দুর রব বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। ব্যবসায়ীদের সঙ্গে কথা বলে জেনেছি কার্ডধারী উপকারভোগীরা চাল নেওয়ার পর ২/৩ জনের নিকট বিক্রি করে দেন। বিক্রিত এই চাল ক্রয় করে নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল। তবে এই চাল সরকারী কি না চালের বস্তায় কোন স্টিকার না থাকায় সনাক্ত করা যায়নি।
ছাতক থানার এসআই আনোয়ার বলেন, চালসহ পিকআপগাড়ী আটক করে থানায় নিয়ে আসা হয়েছে। তদন্ত সাপেক্ষে আইনানুগ ব্যবস্ধা নেওয়া হবে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

More News Of This Category