• বুধবার, ২৭ অক্টোবর ২০২১, ১২:৪৭ অপরাহ্ন
Headline

চকরিয়া ঢেমুশিয়ায় বিধবা মহিলার জায়গা দখলে নিতে সন্ত্রাসী হামলা

Reporter Name / ২১৯ Time View
Update : সোমবার, ৫ জুলাই, ২০২১

চকরিয়া প্রতিনিধিঃ
কক্সবাজারের চকরিয়ায় এক বিধবা মহিলার জায়গা-জমি দখলে নিতে দফায় দফায় হামলা চালিয়ে বিধবা মহিলা ও তার ছেলে এবং শাশুড়ীকে নির্মম ভাবে পিটিয়ে আহত করেছে এলাকায় চিন্তিত সন্ত্রাসী দল।

এ বিষয়ে ঢেমুশিয়া ইউনিয়নের ১ নং ওয়ার্ডের মৃত ফরিদুল হকের স্ত্রী শওকত জাহান বাদী হয়ে চকরিয়া থানায় একটি লিখিত এজাহার দায়ের করেন। এজাহারে মৃত সিরাজুল হকের পূত্র রিদুয়ানুল হক বাবুলও দিদারুল হক বাদল, রহমত এলাহীর পূত্র তোফাজ্জল হোসেন ছুট্রু, তার ভাই আমজাদ হোসেন ও পূত্র রিদুয়ানুল ইসলাম রিয়াদসহ ১০/১২ জনকে অজ্ঞাতনামা করে লিখিত এজাহার জমা দেন।
এজাহার সূত্রে জানা যায়, চকরিয়া উপজেলার ঢেমুশিয়া ইউনিয়নের ১ নং ওয়ার্ড নয়াপাড়ার বাসিন্দা শওকত জাহান স্বামীর মৃত্যুর পর শাশুড়ী ও সন্তান নিয়ে সুখে শান্তিতে বসবাস করে আসছিল। পরবর্তীতে তার ও সন্তানের ভবিষ্যৎ চিন্তা করে শাশুড়ী তাকে ২০শতক জমি রেজিষ্ট্রি কবলা মূলে দান করেন। ঐ জমির উপর আসামিদের লোলুপ দৃষ্টি পড়ে, যার ধারাবাহিকতায় আসামীরা জমি দখলে নিতে মরিয়া হয়ে উঠে। গত ২৭ জুন(সোমবার) সন্ধ্যা ৬ টার দিকে উল্লেখিত আসামীরা পরিকল্পিত ভাবে অবৈধ অস্ত্র-শস্ত্রে সজ্জিত হয়ে ১০/১২ জন ভাড়াটিয়া লোকজন নিয়ে তাকে ও তার ছেলেকে বেদম প্রহার করে এবং তাকে শালীনতাহানী করে গুরুত্বর আহত করে।সাথে আসামীরা বাড়ীর প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র ভাংচুর করে কয়েক লক্ষ টাকা ক্ষতি সাধন করে।প্রতিবেশীরা এগিয়ে আসলে কয়েকজন সন্ত্রাসী পালিয়ে গেলেও ৯৯৯ নম্বরে ফোন করায় ঘটনাস্থলে পুলিশ এসে ঘটনাস্থল থেকে ১ ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসীকে অবৈধ মোটরসাইকেল ও দেশীয় অস্ত্রসহ গ্রেফতার করে চকরিয়া থানায় নিয়ে যায়।
আহত মা,ছেলেকে চকরিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি রাখা হয়।

ভুক্তভোগী শওকত জাহান বলেন,তার স্বামীর আপন ভাই বাদল ও দিদার মিলে তাকে ও তার ছেলে এবং তার শাশুড়িকে মারধর সহ অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে প্রতি নিয়ত। তারা সব সময় মৃত্যু ঝুঁকিতে রয়েছে, তাই তাদের জানমালের নিরাপত্তার স্বার্থে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য সংশ্লিষ্ট কতৃপক্ষের সুদৃষ্টি কামনা করেন।

আসামি রিদুয়ানুল হক বাবুল ও দিদারুল হক বদলের বৃদ্ধ মা এই প্রতিবেদক কেঁদে কেঁদে বলেন, আমার পেট থেকে জন্ম দেওয়া বড় দুই ছেলে বাবুল ও বাদল অত্যান্ত খারাপ প্রকৃতির লোক, তারা কাউকে মান্য করেনা, তাদের কাছে লম্বা বন্দুক রয়েছে এবং এদের অতিস্বত্বর গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনার জন্য প্রশাসনের সুদৃষ্টি কামনা করেছেন।

গত ২৭ জুন আসামীরা সন্ত্রাসী হামলায় তাদের আপন ছোট ভাইকে মারধর করে মারাত্মক ভাবে আহত করে স্বর্ণের চেইন ও মোবাইল ফোন চিনিয়ে নেওয়ার ঘটনায় সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোহাম্মদ সাইফুল হক বাদী হয়ে জি আর ৫৩/২৭৫ মামলা রুজু করেন। উক্ত মামলায় মৃত সিরাজুল হকের পুত্র মোহাম্মদ দিদারুল হক বাদল, রিদুয়ানুল হক বাবুল, সহ ৭ জনকে আসামি করা হয়েছে।
এ বিষয়ে চকরিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শাকের মোঃ যুবায়ের বলেন, মারামারির ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে। এজাহার নামীয় আসামিদের ধরতে পুলিশি অভিযান অব্যাহত রয়েছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category