• মঙ্গলবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৪:৩২ পূর্বাহ্ন
Headline
চকরিয়ায় প্রথম ও সর্ববৃহৎ নারী উদ্যোক্তা সংগঠনের বর্ষপূর্তি পালিত চকরিয়ায় পালমোনারি রিহ্যাবিলিটেশন ওয়ার্কশপ ও সেমিনার কোনাখালী ইউনিয়নে নৌকা প্রতীকের প্রত্যাশী সাবেক ছাত্র নেতা জাফর সিদ্দিকী চকরিয়া পৌরসভা নির্বাচনে কাউন্সিলর পদে দুই সহোদরের পরাজয় কাউন্সিলর আঞ্জুমান আরা কে অভিনন্দন জানালেন যুবলীগ নেতা সুমন কাউন্সিলর নুরুল আমিন কে অভিনন্দন জানালেন যুবলীগ নেতা সুমন শান্তিপূর্ণ নির্বাচনে আলমগীর চৌধুরী পুনরায় মেয়র নির্বাচিত রাত পোহালেই চকরিয়া পৌরসভায় ইভিএমে ভোট গ্রহণ,প্রশাসনের প্রস্তুতি সম্পন্ন চকরিয়ায় আদালতের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে জোর পূর্বক বসতভিটা দখল চকরিয়া পৌরসভা আওয়ামী লীগের সভাপতি পদ থেকে সাময়িক বহিষ্কার প্রসঙ্গে জাহেদুল ইসলাম লিটু

চকরিয়ায় জমির আইল কেটে জবর দখল: কৃষক কে কুপিয়ে জখম

Reporter Name / ৮৩ Time View
Update : রবিবার, ২৫ জুলাই, ২০২১


চকরিয়া(কক্সবাজার) প্রতিনিধি:

কক্সবাজারের চকরিয়ায় জমির আইল কেটে জবর দখলকে কেন্দ্র করে জমি মালিক ছৈয়দ আকবরের পুত্র কৃষক মোঃ আবদু শুকুর (৫৬)কে হত্যার চেষ্টায় সন্ত্রাসী কায়দায় ধারালো দেশীয় অস্ত্র দিয়ে উপর্যপুরী কুপিয়ে গুরুতর জখম করা হয়েছে। উপজেলার হারবাং ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ডের উত্তর পহরচাঁদা গ্রামে ২৪জুলাই’২০২১ইং সকাল ১১ ঘটিকার দিকে ঘটেছে এ ঘটনা। এনিয়ে হামলার শিকার মোঃ আবদু শুক্কুরের পুত্র মো: নুরুল আমিন (২৭) বাদী হয়ে ২৫ জুলাই থানায় লিখিত এজাহার দায়ের করেছেন। এতে বিবাদী করা হয়েছে; একই ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ডের ভাইয়াকাটা গ্রামের এলাকার মৃত ওয়াজেদ আলীর পুত্র আমির হোসেন (৪২), নুরুল আলম (৪৫) ও আমির হোসেনের পুত্র মো: রিদুয়ান (২২) সহ অজ্ঞাত আরো ৪/৫ জনকে।
অভিযোগে জানাগেছে, চকরিয়া উপজেলার হারবাং মৌজায় ছৈয়দ আকবরের পুত্র মো: আবদু শুকুরের মালিকানাধীন, পৈত্রিক ওয়ারিশী স্বত্ব ভোগ দখলে রয়েছে। ঘটনারদিন ২৪জুলাই সকাল ১১ ঘটিকার দিকে অভিযুক্তরা তাদের পার্শ্ববর্তী জমি থাকায় জমির প্রতি লুলোপ দৃষ্টি পড়ে। এর ধারাবাহিকতায় জমির আইল কেটে অতিরিক্ত জমি জবর দখলের চেষ্টা চালালে তাতে বাধা সৃষ্টি করে জমি মালিক আবদু শুকুর। এসময় তাকে সন্ত্রাসী কায়দায় ধারালো অস্ত্র দা কিরিছ দিয়ে হত্যার চেষ্টায় উপর্যপুরী কুপিয়ে গুরুতর জখম করে। তার মাথার পেছনে ও পীঠে কিরিছের কোপের আঘাত রয়েছে। মারা গেছে মনে করে জমিতে পড়ে থাকলে মুমুর্ষ অবস্থায় স্থানীয় লোকজন ও পরিবারের সদস্যরা তাকে উদ্ধার করে চকরিয়া সরকারী হাসপাতালে ভর্তি করেন।
বাদী মোঃ নুরুল আমিন অভিযোগ করেন, হামলাকারীরা সন্ত্রাসী কায়দায় পূর্বপরিকল্পিতভাবে তার পিতা আবদু শুক্কুরের মাথার পেছনে ৩টি ও পীঠে ২টি ও পীঠের ডান পাশের নীচের অংশে ২টি কোপ মেরে রক্তাক্ত হাঁড়কাটা জখম করে। ফলে প্রচুর রক্তক্ষরণ হয়। সন্ত্রাসীরা তার পিতাকে মৃত্যু নিশ্চিত মনে করে পালিয়ে যায়।
চকরিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) মো: জুয়েল ইসলাম জানিয়েছেন, ঘটনার বিষয়ে এজাহারটি পাওয়ারপর প্রাথমিক তদন্তের জন্য হারবাং ফাঁড়ি পুলিশের ইনচার্জ (ইন্সপেক্টর) আজাহারুল ইসলামকে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। তদন্তের পর জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।##


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category